মাটি খুঁড়লেই মিলছে সোনা! আস্ত সোনার পাহাড় ঘিরে হুড়োহুড়ি!!

0
520
image-google

সোনার কেল্লা নয় কি যেন আস্ত এক ‘সোনার পাহাড়’! সম্প্রতি সেই পাহাড়ের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে সুদূর কঙ্গোতে। সেই দেশের মানুষের দাবী সেখানকার মানুষদের দাবি তাদের দেশের এক পাহাড়ের মধ্যেই নাকি রয়েছে সোনার উপাদান তাই ওই পাহাড়পুরের সোনাবার করার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছে কঙ্গো বাসি।

See more

ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে কঙ্গোর দক্ষিণ কিভু প্রদেশের লুহিহি এলাকায় অবস্থিত একটি পাহাড়ে সোনা সন্ধানের খবর মেলে। ওই পাহাড়ের পাথুরে মাটিতে নাকি প্রায় ৬০ থেকে ৯০ শতাংশই আকরিকই সোনা। 

Image-Google


 
সম্প্রতি মাটি কেটে সোনা পান বেশ কিছু ব্যক্তি। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে হাজার হাজার গ্রামবাসী কোদাল, শাবল নিয়ে পাহাড়ে ভিড় করেন। 

ভিডিওতে দেখা গেয়েছে, শাবল-বেলচা দিয়ে লুহিহির পাহাড়ের পাথুরে মাটি খুঁড়ে সোনা খুঁজছেন গ্রামবাসী। অনেকেই খালি হাতে পাহাড়ের মাটি সংগ্রহ করছেন। এর পর সেই মাটি তুলে নিয়ে গিয়ে তাতে সোনা খুঁজছেন। 

ভিডিওতে একজনকে নিজের টি-শার্ট উল্টে তাতে মাটি ভরে নিয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। 

সাংবাদিক আহমেদ জানিয়েছেন, পাথুরে মাটি থেকে সোনার উপাদান আলাদা করতে একটি পাত্রের পানিতে তা ধুয়ে নিচ্ছেন গ্রামবাসী। এ ভাবেই হাতের মুঠোয় উঠে আসছে সোনা!

Image-Google

সোনার উপাদান পেতে তারা সেই মাটি গুলিকে জলে ধুয়ে হাতের মুঠোয় করে নিয়ে যাচ্ছে। সোনার খোঁজে ওখানকার সকলে এতো মশগুল হয়ে গেছে যে ওই গ্রামে পাড়া খায় দায় হয়ে উঠেছে অনেকের পক্ষে ফলে ওই এলাকায় এক বিশৃংখলার সৃষ্টি হয়েছে। বেগতিক দেখে সোমবার থেকে ওই এলাকায় খোঁড়ার কাজ নিষিদ্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফ থেকে গত বছর একটি রিপোর্ট পেশ করা হয়েছিল। যেখানে বলা হয়েছিল কংগো সহ অন্যান্য জায়গা গুলিতে সোনার সহ অন্যান্য যেসব মূল্যবান ধাতব পদার্থের পরিমাণ খনন করা হয় তার বেশিরভাগই নথিবদ্ধ করা হয় না। তারা দাবি জানিয়েছেন পূর্বপ্রান্তের দেশগুলির মধ্যে দিয়ে সেই নথিভুক্তিকরণ ছাড়া ধাতব পদার্থ গুলি পাচার হয়ে যায়।।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here