আরো পড়ুন

রমেই উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’। হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, রবিবার মধ্যরাতেই পশ্চিমবঙ্গের সুন্দরবন হয়ে স্থলভাগে ঢোকা শুরু করবে বুলবুল। দমকা বাতাসের গতিবেগ ১০০/১১০ কিমি/ঘণ্টা হতে পারে। কোমর বেঁধে প্রস্তুত রাজ্য প্রশাসন। উপকূলীয় জেলাগুলিকে চূড়ান্ত সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। ত্রাণসামগ্রী প্রস্তুত রাখার নির্দেশ গিয়েছে জেলার প্রশাসনিক আধিকারিকদের কাছে। আজ শুক্রবার থেকেই মৎসজীবীদের সমুদ্রে যাওয়া নিষেধ। যাঁরা এখনও সমুদ্রে রয়েছেন তাদের ফেরানোর বার্তা পাঠানো হয়েছে। বুলবুলের মোকাবিলায় বৈঠক হয়েছে কলকাতা পুরসভাতেও।

আরো পড়ুন

কলকাতা,হাওড়া,হুগলী, উত্তর ও দক্ষিন চব্বিশ পরগনা ও ২ মেদিনীপুরে সবথেকে ভয়াবহ হয়ে উঠবে বুলবুল বলে জানাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর।

ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বা সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্মের আকার নিয়েছে বুলবুল। শনিবারের মধ্যেই উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ক্রমেই পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উপকূলের দিকে এগোচ্ছে বুলবুল। তবে বারবার গতিপথ বদলানোয় উপকূলের ঠিক কোন এলাকায় আছড়ে পড়বে, তা এখনও নিশ্চিত নয় আবহবিদদের

Cyclone Fani

দিঘা, মন্দারমণি, তাজপুর, বকখালির মতো উপকূলবর্তী পর্যটনকেন্দ্র গুলিতে আজ শুক্রবার থেকেই সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়েছে পর্যটকদের। এই সব উপকূলে প্রবল জলোচ্ছ্বাসের সম্ভাবনা। উপকূল জুড়ে চলছে চলছে মাইকিং। উদ্ধারের জিনিসপত্র ও ত্রাণসামগ্রী নিয়ে তৈরি রয়েছে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট টিম। শুরু হয়েছে ২৪ ঘণ্টার নজরদারি।

ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বা সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্মের আকার নিয়েছে বুলবুল। শনিবারের মধ্যেই উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ক্রমেই পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উপকূলের দিকে এগোচ্ছে বুলবুল। তবে বারবার গতিপথ বদলানোয় উপকূলের ঠিক কোন এলাকায় আছড়ে পড়বে, তা এখনও নিশ্চিত নয় আবহবিদরা।

দিঘা, মন্দারমণি, তাজপুর, বকখালির মতো উপকূলবর্তী পর্যটনকেন্দ্র গুলিতে আজ শুক্রবার থেকেই সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়েছে পর্যটকদের। এই সব উপকূলে প্রবল জলোচ্ছ্বাসের সম্ভাবনা। উপকূল জুড়ে চলছে চলছে মাইকিং। উদ্ধারের জিনিসপত্র ও ত্রাণসামগ্রী নিয়ে তৈরি রয়েছে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট টিম। শুরু হয়েছে ২৪ ঘণ্টার নজরদারি।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here