আরো পড়ুন

২০০ কিলোমিটার বেগে ঘূর্ণিঝড় কিয়ার আছড়ে পড়তে চলেছে আরব সাগরের তীরের চার রাজ্যে। এমনই সতর্কতা জারি করেছে দেশের মৌসম ভবন। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফত্র সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় কিয়ারের দাপটের কারণে মৎস্যজীবিদের সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়েছে।  রবিবার সকালে কিয়ার ২০০ কিলোমিটার বেগ শক্তি সঞ্চয় করে নিলে তা অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের রুপ নিয়ে নেবে।

আরো পড়ুন

সেই কারণে মহারাষ্ট্র, গোয়া, কর্ণাটক এবং গুজারাত উপকূলের এক অংশে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আর এই কারণে ২৭ থেকে ২৯ অক্টোবর পূর্ব-মধ্য আরব সাগরে ২৮-৩১ অক্টোবর পশ্চিম-মধ্য আরব সাগরে মৎস্যজীবিদের সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়েছে।.

মৌসম ভবনের পূর্বাভাস, এই সময় মহারাষ্ট্র, গোয়া, কর্ণাটক গুজরাতের কিছু অংশে সমুদ্র উত্তাল থেকে অতি উত্তাল হয়ে উঠতে পারে। এরই মধ্যে ধেয়ে আসছে আরও একটি সাইক্লোন। ক্রমশ শক্তি পাকিয়ে ধেয়ে আসছে সাইক্লোন বুলবুল। যার জেরে আগামী কয়েকদিন বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলাতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে পূর্বাভাসে জানাচ্ছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

আগামী ৭ তারিখের মধ্যে সেটি ভারতের উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। যার জেরে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হলেও তেমনই ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস নেই বলেই জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here