আরো পড়ুন

ট্রেনে টিকিট রিজার্ভেশন এর ক্ষেত্রে সবসময় অন্তত ৪৫দিন আগে থেকেই রিজার্ভেশন করে রাখতে হয়। তাও অনেক সময়ে ১/২ দিনেই সমস্ত টিকিট বিক্রি হয়ে যায় যার জন্যে অনেক যাত্রীর মাথায় চিন্তার ভাঁজ পড়ে যায়। এবার এই চিন্তায় পড়ার আর কোনও কারন নেই। খুব সহজেই শেষ মুহূর্তেই পেয়ে যান যে কোনও স্থানের রেলের টিকিট।

আরো পড়ুন

মনে রাখবেন, যাত্রার কমপক্ষে ২৪ ঘণ্টা আগে বুক করতে হবে তৎকাল টিকিট। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় তৎকাল এসি কোচের টিকিট কাটার সময় । একইদিনে নন এসি কোচের টিকিট বুকিংয়ের সময় শুরু হয় বেলা ১১টা থেকে। তৎকালে টিকিট বুকিংয়ের ক্ষেত্রে সাধারণ ভাড়ার চেয়ে খরচ বেশি। তবে সেটা সামান্যই। সেকেন্ড ক্লাসের জন্য মূল ভাড়ার ১০ শতাংশ এবং বাকি কোচের জন্য ৩০ শতাংশ বেশি দিতে হয়। তবে সেটা ট্রেন সফরের দূরত্বের উপরে নির্ভর করে।

জেনে নিন আইআরসিটিসি ওয়েবসাইট থেকে কী ভাবে কাটবেন টিকিট–

১) প্রথমেই মনে করে টিকিট কাটার নির্ধারিত সময়ের ১০ থেকে ৫ মিনিট আগে আইআরসিটিসি ওয়েবসাইটে লগ ইন করুন।

২) মনে রাখবেন, একটা লগ ইন থেকে চার জনের বেশি তৎকালে টিকিট কাটা সম্ভব নয়।

৩) বুকিংয়ের জন্য ট্রেনের নাম, গন্থব্যস্থল এবং যাত্রার নির্দিষ্ট দিন নথিভুক্ত করুন।

৪) তারপর ক্লিক করুন ‘সাবমিট’।

৫) সিলেক্ট করে নিন ‘তৎকাল’

৬) ট্রেন বাছাইয়ের জন্য ‘বুক নাও’ ট্যাপ করুন

৭) এরপর, নথিভুক্ত করুন যাত্রীদের নাম, বয়স, লিঙ্গ, এবং বুক করা সিটের সংখ্যা।

৮) ‘Book only if confirm berths are allotted’ এই চেক বক্সে অবশ্যই ক্লিক করে নিন।

৯) স্ক্রিনে আসা ক্যাপচা যথাস্থানে লিখুন।

১০) এবার পেমেন্ট অপশন বেছে নিন।

এবার জেনে নিন আইআরসিটিসি অ্যাপ থেকে কী ভাবে তৎকাল টিকিট কাটবেন–

১) অ্যাপের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ১৫ মিনিট আগে লগ ইন করুতে হবে ।

২) বুকিংয়ের জন্য ট্রেনের নাম, গন্থব্যস্থল এবং যাত্রার নির্দিষ্ট দিন নথিভুক্ত করে ‘সাবমিট’ ক্লিক করুন।

৩) ‘তৎকাল’ সিলেক্ট করে নিন।

৪) ট্রেন বাছাইয়ের জন্য ‘বুক নাও’ ট্যাপ করুন

৫) এরপর, নথিভুক্ত করুন যাত্রীদের নাম, বয়স, লিঙ্গ, বুক করা সিটের সংখ্যা এবং ফোন নম্বর।

৬) ক্যাপাচা পূরণ করুন।

৭) ই-ওয়ালেট অপশনের মধ্যে পাবেন জিও মানি, এয়ারটেল মানি, ওলা মানি, মোবিকুইক ইত্যাদি। এছাড়া ‘আইআরসিটিসি ই-ওয়ালেট’ও ব্যবহার করতে পারেন।

এখন পেটিএম অ্যাপ থেকেও ট্রেনের তৎকাল টিকিট কাটা যায়। জানুন পদ্ধতি।

১) পে-টিএম ‌অ্যাকাউন্ট লগ ইন করে ক্লিক করুন ট্রেন অপশনে।

২) টিকিট বুকিংয়ের জন্য ট্রেনের নাম, গন্থব্যস্থল এবং যাত্রার নির্দিষ্ট দিন যাত্রী সংখ্যা নথিভুক্ত করুন।

৩) ‘তৎকাল’ সিলেক্ট করে, ট্রেন বাছাইয়ের জন্য ‘বুক নাও’ ট্যাপ করুন

৪) কোন বার্থ নিতে চান সেই অপশনও থাকবে এখানে।

৫) শেষে টিকিটের দাম পে করতে পে-টিএম ওয়ালেট সহ ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, ক্রেডিট- ডেবিট কার্ড ব্যবহার করতে পারেন।

আরও একটা বিষয় মনে রাখবেন, একবার তৎকাল টিকিট কাটা হয়ে গেলে তা ক্যানসেল করলেও টিকিটের অর্থ ফেরৎ পাওয়া যায় না।

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here